পঞ্চায়েত সংবাদ 

মনোমুগ্ধ গান গেয়েই নির্বাচনী প্রচার সারছেন অর্পিতা ঘোষ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি, বালুরঘাটঃ নির্বাচনী প্রচারে অভিনব পন্থা অবলম্বন করছেন বালুরঘাটের সাংসদ অর্পিতা ঘোষ। জনগণের মনোমুগ্ধ গান গেয়েই দলীয় প্রার্থীদের হয়ে ভোট প্রচার করছেন তিনি। যেখানেই প্রচারে যাচ্ছেন সাধারণ মানুষের সর্বশেষ দাবি থাকছে গান শোনার। আর এই দাবি পালনের যথাযথ চেষ্টাও করছেন অর্পিতা।

পঞ্চায়েত ভোট দিনক্ষণ এখনও ঠিক হয়নি। তারিখ ঠিক না হলেও সব রাজনৈতিক দলই প্রচারে ঝাঁপিয়ে পড়েছে। লড়াই এর ময়দানে কেউ কাউকে এক ইঞ্চিও জায়গা ছাড়তে নারাজ। ইতিমধ্যে সব দলের হয়েই প্রচারে আসতে শুরু করেছেন জেলার হেভি ওয়েট নেতারা। নিজ নিজ দলের প্রার্থীদের হয়ে প্রচার চালাতে এখন বেজায় ব্যস্ত সকলেই।
এদিকে মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় থেকেই জেলায় রয়েছেন বালুরঘাটের সাংসদ অর্পিতা ঘোষ। দলীয় প্রার্থীদের হয়ে প্রচার করতে সারা জেলা ছুটছেন।

তবে অর্পিতার প্রচারের ভাবনাটা একটু অন্যরকম। শুধু উন্নয়ন বা বিরোধী বিঁধে প্রচার নয়, সঙ্গে থাকছে নানান গানও। প্রত্যেক প্রচারেই নিজের গলায় গান করছেন সাংসদ। এবং তার সেই গানের সঙ্গে রীতিমতো তাল মেলাচ্ছেন অন্যরাও।
নাট্যকার হিসেবেই পরিচিত অর্পিতা ঘোষ। ২০১৪ লোকসভা নির্বাচনে বালুরঘাট কেন্দ্র থেকে তৃণমূলের হয়ে অর্পিতা ঘোষকে প্রার্থী করেন মমতা ব্যানার্জী। বিপুল ভোটে জয়ী হন তিনি। একজন নাট্যকার হওয়ায় জেলার বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানেও হাজির থাকেন অর্পিতা ঘোষ।
প্রচারে গানের পাশাপাশি অর্পিতা ঘোষ বলেন,  ‘বাংলার মানুষ বিজেপিকে কোনও দিনও মেনে নেবে না। বিজেপি ভোট চাইতে গেলে বলবেন, ১৪ই মে’এর পরেরদিন আসবেন, চা খাওয়াবো। এখন আপাতত নমস্কার জানিয়ে তাদের বাড়ি পাঠিয়ে দিন। আর বামফ্রন্ট এলে দরজাটা খুলে বলুন ৩৪ বছর এখন বিশ্রাম নিন। ৩৪ বছর পর দেখা হবে’।
এছাড়াও পথসভায় তিনি বলেন, ‘চোখ খুলে শুধু ঘাসফুল দেখুন। মমতা ব্যানার্জী আর ঘাসফুল, এই ছাড়া পশ্চিমবঙ্গে আর কিছু নেই।’ রাজ্যে উন্নয়নের স্বার্থে মমতা ব্যানার্জীর হাত শক্ত করতে তৃণমূল প্রার্থীদের জয়যুক্ত করার আহ্বান জানান তিনি।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment