জেলা 

পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন হল মতুয়া মহাসংঘের প্রধান বীণাপাণি দেবীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া ; বড়মাকে শেষ দেখার জন্য ভক্তদের ভিড়

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় সম্পন্ন হল মতুয়া মহাসংঘের প্রধান বীণাপাণি দেবীর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া। বড়মাকে শেষ শ্রদ্ধা জানাতে ঠাকুরবাড়িতে ভেঙে পড়ে ভক্তের ঢল। শেষ হল একটা অধ্যায়। শেষ হল একটা যুগ। পঞ্চভূতে বিলীন হলেন বড়মা। বুধবারই বীণাপাণি দেবীর দেহ নিয়ে  ঠাকুরবাড়ি পৌছয় কনভয়। রাতভর বড়মার দেহ শায়িত ছিল নাটমন্দিরে। ভোরের আলো ফোটার আগে অগণিত ভক্ত  ঠাকুরবাড়িতে হাজির হয় , তাদের সকলের প্রধান লক্ষ্য হল  একটিবারের মতো বড়মাকে দেখতে, শেষ শ্রদ্ধা জানাতে।

ঘড়িতে সাড়ে ১০টা। নাটমন্দির থেকে নামানো হয় বড়মার দেহ। কাঁচবন্দি গাড়ি রওনা দেয় খ্রিস্টান পাড়ার দিকে। সেখান থেকে গাঁথিমোড়-দুর্গামোড় ঘুরে প্রমথরঞ্জন ঠাকুরের মূর্তিতে পৌঁছয় শোভাযাত্রা। একটু একটু করে এগোয় মিছিল। আর বড়মাকে ঘিরে বেড়ে চলে ভক্তের ঢল। এরপর ঠাকুরনগর স্টেশনের পাশের রাস্তা দিয়ে ঘুরে ফের ঠাকুরবাড়িতেই ফেরে বড়মার দেহ। ঘড়ির কাঁটা তখন ২টো ছুঁইছুঁই।

স্বামী প্রমথরঞ্জন ঠাকুরের পাশেই বড়মার অন্তেষ্ট্যির আয়োজন করা হয়েছিল। সকাল থেকেই সেখানে চলছিল নামগান, স্তোস্ত্রপাঠ। পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বড়মার শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে। আগেই ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইমতো সব ব্যবস্থা পাকা ছিল। প্রস্তুত ছিল পুলিসও। দুপুর ৩টে, প্রমথরঞ্জনের সমাধিস্থলের কাছেই গান স্যালুটে শেষ শ্রদ্ধা জানানো হয় বড়মাকে। মতুয়া সম্প্রদায়ের রীতি মেনে মুখাগ্নি নয়। যজ্ঞের আগুনে অন্ত্যেষ্টি সম্পন্ন হয় বড়মার।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment