জেলা 

বড়মা নিয়ে তরজা অব্যাহত , ছোট ছেলেকে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক :  মতুয়া সংঘের বড়মাকে রাজনীতি অব্যাহত । হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন মতুয়া মহাসংঘের বড়মা বীণাপাণি ঠাকুর তাঁর শারীরিক অবস্থা খুবই সংকটজনক। কিন্তু, তাঁর সঙ্গে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না। মাকে মারার ষড়যন্ত্র হচ্ছে কি না তা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছেন ছোটো ছেলে তথা বিজেপি নেতা মঞ্জুলকৃষ্ণ ঠাকুর।

তিনি বলেন, “অনেকদিন ধরেই মায়ের শারীরিক অবস্থার কথা জানানো হচ্ছে না আমাদের। গত দু’বছর ধরে মায়ের ঘরের সামনে পুলিশি পাহারা বসিয়েছে রাজ্য সরকার। ছেলে হয়েও মায়ের সঙ্গে দেখা করতে পারিনি। এখন হঠাৎ শুনছি মাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পুলিশ দিয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।” মঞ্জুলের দাবি, তৃণমূল সাংসদ তথা ঠাকুরবাড়ির বড় বউমা মমতাবালা ঠাকুরের অঙ্গুলিহেলনেই তাঁকে দূরে সরিয়ে রাখা হচ্ছে। আর বিষয়টিতে মদত দিচ্ছে রাজ্য সরকার। তাঁর কথায়, “কাউকে দেখা করতে দিচ্ছে না। পুলিশ ও প্রশাসনকে দিয়ে বন্দী করে রাখা হয়েছে। কাগজ পড়ে বা টিভিতে খবর দেখে মায়ের অসুস্থতার বিষয়ে জানতে হচ্ছে। মাকে মারার ষড়যন্ত্র হচ্ছে কি না জানি না। প্রশাসন মমতাবালাকে দিয়ে এরকম করাচ্ছে। কারা কী করছে তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েছে। কাদের এত দরদ হয়েছে?”

উল্লেখ্য, ২৮ ফেব্রুয়ারি রাতে বীণাপাণি দেবীকে কল্যাণী জেএনএম হাসপাতালে ভরতি করা হয়। তিনি ফুসফুসের সংক্রমণে ভুগছেন। পরে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে কলকাতার পিজি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment