কলকাতা 

বিগত ৮ বছরে তৃণমূল সরকার একটিও মাদ্রাসাকে সরকারি অনুদানসহ অনুমোদন দেয়নি ;সুপরিকল্পিতভাবে সংখ্যালঘু মানুষদের শিক্ষা ও চেতনার মেরুদন্ড ভেঙে দেওয়ার চক্রান্ত চলছে ; সংখ্যালঘু উন্নয়ন প্রশ্নে তৃনমূল সরকারকে তোপ সোমেনের

শেয়ার করুন
  • 12
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : পশ্চিমবাংলার সংখ্যালঘুদের উন্নয়নে ৯৯% কাজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার করে দিয়েছেন বলে মুখ্যমন্ত্রী দাবি করে থাকেন । সেই দাবিকে মান্যতা দিতে রাজি নয় ; রাজ্যের বিরোধী দলগুলি । সম্প্রতি প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র কংগ্রেস বার্তায় একান্ত সাক্ষাৎকারে সংখ্যালঘুদের উন্নয়নের প্রশ্নে রাজ্য সরকার পুরো ব্যর্থ বলে দাবি করেছেন । কংগ্রেস বার্তার সাক্ষাৎকার বাংলার জনরব পাঠকের জন্য তুলে ধরা হল । এই সাক্ষাৎকারটি চারটি কিস্তিতে প্রকাশ করা হবে । আজ প্রথম কিস্তি । সাক্ষৎকারটি নিয়েছেন অশোক ভট্টাচার্য।

প্রশ্ন : আমাদের রাজ্যে মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী দাবি করে করেছেন যে ,এই রাজ্যের সংখ্যালঘুদের জীবনের মানোন্নয়ণ , শিক্ষা ও কর্মস্থানের বিষয়ে রাজ্য সরকার প্রায় ৯৯ শতাংশ কাজ করে ফেলেছে । এই বিষয়ে আপনার মত কী ?

সোমেন মিত্র : মানুষকে সম্পূর্ণ ভুল বোঝানোর চেষ্টা করছেন আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী। অন্যান্য ক্ষেত্রের মতো সংখ্যালঘু মানুষদের উন্নয়নের ক্ষেত্রেও তৃণমূল পরিচালিত রাজ্য সরকার পুরো ব্যর্থ ।

মাদ্রাসা শিক্ষার ব্যাপারে এ রাজ্য সরকার যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল , তা পালন করেনি । বিগত ৮ বছর বছরে এই সরকার রাজ্য সরকারি অনুদান সহ একটিও মাদ্রাসাও অনুমোদন দেয়নি । মাদ্রাসাগুলিতে শিক্ষক নিয়োগ প্রায় বন্ধ । ফলতঃ পঠন-পাঠনও বিপর্যস্ত ।

‘ মাদ্রাসা সার্ভিস কমিশন‘ও প্রায় বন্ধের মুখে । অন্যান্য জেলায় ১-এর বেশি হলেও মুর্শিদাবাদ জেলায় কোনও বিশ্ববিদ্যালয় আজও চালু হল না । ফারাক্কা থেকে ছাত্র-ছাত্রীদের কল্যাণী ছুটতে হয় । এ সরকার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল , আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে ‘ মাদ্রাসা ‘ শব্দটি যুক্ত করবে । আজ অবধি সেই প্রতিশ্রুতি পালন করল না তৃণমূল সরকার । অত্যন্ত সুপরিকল্পিতভাবে সংখ্যালঘু মানুষদের শিক্ষা ও চেতনার মেরুদন্ড ভেঙে দেওয়ার চক্রান্ত চলছে এ রাজ্যে ।

কৃতঞ্জতা স্বীকার : ড. আবদুস সাত্তার ।


শেয়ার করুন
  • 12
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment