জেলা প্রচ্ছদ 

চিট ফান্ড কেলেংকারি নিয়ে আবার তৃণমূলের হেভিওয়েট নেতা-মন্ত্রীদের হুশিয়ারি দিলেন মুকুল রায়

শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ পঞ্চায়েত নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে ততই রাজনৈতিক কাদা ছোড়াছুড়ি বৃদ্ধি পাচ্ছে। তবে এবারের নির্বাচনে পশ্চিমবাংলায় এই প্রথম বিজেপি দল এত গুরুত্ব পাচ্ছে। পঞ্চায়েত নির্বাচন চালু হওয়ার পর থেকে এই রাজ্যে শুধু কংগ্রেস-সিপিএম এবং বিগত কয়েক বছর ধরে তৃণমূল কংগ্রেস গুরুত্ব পেয়ে এসেছে। আর একটি কারণে বিজেপি দল এই রাজ্যের পঞ্চায়েতে রেসের ঘোড়া হয়ে উঠেছে তা হল মুকুল রায়ের বিজেপিতে যোগ দেওয়া। আসলে মুকুল রায় তৃণমূল কংগ্রেসের প্রতিষ্ঠার দিন থেকে এই দলটির সঙ্গে ছিলেন। বলা যেতে পারে তিনিই তৃণমূল কংগ্রেসের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা। সেই প্রতিষ্ঠাতা দল ছেড়ে,সেই ব্যক্তি যে দলে যোগ দেবেন স্বাভাবিকভাকে সেই দল ভাল মিডিয়া কভারেজ পাবে। তাই এবারে পঞ্চায়েত নির্বাচনে মুকুলই হয়ে উঠেছেন বিরোধী দলের প্রধান মুখ।

তাই তিনি ভাল মিডিয়া কভারেজ পাচ্ছেন। কয়েকদিন আগেই পঞ্চায়েত নির্বাচনে  বিজেপি জিতলে বেকারদের স্মার্ট ফোন দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন মুকুল রায়। তিনি জানিয়েছিলেন আমি  তৃণমূল ছেড়ে যদি বিশ্বাসঘাতক হই,তাহলে মমতা কংগ্রেসকে ছেড়ে কী বিশ্বাসঘাতকতা করেননি? আবার আজ দক্ষিণ দিনাজপুরের দৌলতবাদে সভা করতে গিয়ে চিট ফান্ড কেলেংকারি নিয়ে মুকুল রায় মুখ খুললেন। তিনি একটি ফাইল দেখিয়ে বললেন,এতে দিদির ভাইদের কেচ্ছা-কেলেংকারি রয়েছে সময় এলে প্রকাশ করা হবে। তিনি এবার সরাসরি রাজ্যের শিক্ষা মন্ত্রী পার্থ চ্যাটা্র্জিকে  টা্র্গেট করে বলেন,তিনি নাকি প্রয়াগ নামে এক চিটফান্ডে টাকা রাখতে মানুষকে বলেছিলেন।বিজেপি নেতা মুকুল রায় কোন রাখ ঢাক না করেই বলেই দিলেন খুব শীঘ্রই চিটফান্ড কেলেংকারিতে জড়িয়ে আছেন এমন বেশ কয়েকজন তৃণমূলের হেভিওয়েট মন্ত্রী ও নেতাদের বিচার শুরু হবে।


শেয়ার করুন
  • 3
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment