দেশ 

‘‘আমি আপনাদের আশ্বস্ত করছি, দেশ নিরাপদ হাতেই আছে “ মঙ্গল বারের সফল “ সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের “ পর প্রধানমন্ত্রীর প্রতিক্রিয়া

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : ভারতীয় বায়ুসেনা অসমান্য কৃতিত্ব নীয়ে যখন সংবাদ-মাধ্যম ফলাও করে প্রচার চালাচ্ছে । সেনাবাহিনীকে শুভেচ্ছা জানিয়ে একের পর এক টুইট করে চলেছেন দেশের তাবড় তাবড় রাজনীতিবিদরা । রাহুল ,মমতা , কেজরিওয়াল ও অখিলেশ তো খুব সকালেই সেনাবাহিনীর এই কাজকে বাহবা দিয়ে টুইট করেছেন । কিন্ত যিনি এই অপারেশনের মূল কারিগর তিনি সকাল থেকেই নিরব ছিলেন । তাঁর নিরবতা নিয়ে সবাই একটু অবাক হয়েছেন । তবে তিনি মুখ খুললেন ।

রাজস্থানের চুরুতে এক জনসভায় ভাষণ দিতে গিয়ে সরাসরি পাক মাটিতে হামলা নিয়ে কিছু না বললেও অনেক কিছু বুঝিয়ে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। দৃশ্যতই খুশি প্রধানমন্ত্রী জনতার উদ্দেশে প্রশ্ন ছুড়ে দেন, ‘‘আপনাদের আজ একটু বেশিই খুশি মনে হচ্ছে?’’ এর পরেই তিনি বলেন, ‘‘আমি আপনাদের আশ্বস্ত করছি, দেশ নিরাপদ হাতেই আছে। যাঁরা দেশের সেবা করছেন, দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন, তাঁদের সবাইকে আমি প্রণাম জানাই।’’

পুলওয়ামা কাণ্ড নিয়ে বিরোধীদের অনেক তির্যক মন্তব্য শুনতে হয়েছে নরেন্দ্র মোদীকে। এ দিন যেন বিরোধীদেরই জবাব দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘‘আমার কাছে নিজের থেকে বড় দল, আর দলের থেকে বড় দেশ। জয় জওয়ান, জয় কিষান, জয় বিজ্ঞান— এই ভাবনা নিয়ে আমরা এগোচ্ছি।’’

২০১৬ সালে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক নিয়েও ব্যাপক প্রচার করেছিল বিজেপি। বার বার এই সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের প্রসঙ্গ তুলেছেন মোদী নিজেও। যা নিয়ে বিরোধীদের অভিযোগ ছিল, সার্জিক্যাল স্ট্রাইককে রাজনৈতিক প্রয়োজনে ব্যবহার করেছেন প্রধানমন্ত্রী। ফলে, এবারে ভোটের আগে পাক মাটিতে বায়ুসেনার সফল অভিযান তাঁকে স্বস্তি দিলেও তা নিয়ে হয়তো ভেবেচিন্তেই পা ফেলবেন প্রধানমন্ত্রী।

সেনাবাহিনী এবং তাদের পরিবারের মন জয়ের জন্য মোদী ফের মনে করিয়ে দেন, ‘‘এক পদ, এক পেনশন ব্যবস্থা শুরু করার আশ্বাস দিয়েছিলাম, তা পূরণ করেছি।’’ প্রধানমন্ত্রীর দাবি, ইতিমধ্যেই একুশ লক্ষ প্রাক্তন সেনাকর্মী এবং তাঁদের পরিবার এই সুবিধে পেয়েছেন।

অভিযান সফল করে বায়ুসেনার যুদ্ধবিমানগুলি নিরাপদে ফিরে আসার পরে মঙ্গলবার সকালে জানতে পারল সারা দেশ। কেন্দ্রীয় সরকার কিন্তু বেশ কয়েক দিন আগে থেকেই পাক মাটিতে জইশের ঘাঁটি ধ্বংস করার জন্য বায়ুসেনার এই পরিকল্পনার কথা জানত। এবিপি নিউজ-এর খবর অনুযায়ী, সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের মতো এ বারেও বিমান হানার সময়ে সাউথ ব্লকে আগাগোড়া হাজির ছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment