কলকাতা 

আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বামেদের সঙ্গে কংগ্রেসের জোট কোন সমঝোতায় হচ্ছে তা জানতে চান ?; ক্লিক করুন

শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

নিজস্ব প্রতিনিধি : আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে বাম কংগ্রেস জোট হতে চলেছে বলে বিশেষ সূত্রে জানা গেছে । আগামী সপ্তাহের মধ্যেই চূড়ান্ত আসন রফা হয়ে যাবে বলে রাজনৈতিক মহলে খবরে । জানা গেছে , সিপিএম এবং কংগ্রেস উভয়েই নিজেদের অস্তিত্ব রক্ষা এবং বিজেপি ও তৃণমূল বিরোধিতাকে বজায় রেখে রাজ্য রাজনীতিতে টিকে থাকার লক্ষ্যে জোটে সম্মত হয়েছে । রাজ্য সিপিএম দলের প্রথম সারির এক নেতা স্বীকার করে নিলেন , জোট হবে । তবে তা আলোচনার মাধ্যমে আসন রফা করা হবে । ইতি মধ্যে দুই দলের রাজ্য নেতারা কলকাতায় বৈঠক করেছেন । একই সঙ্গে জাতীয় স্তরেও সীতারাম ইয়েচুরি ও রাহুল গান্ধীর সঙ্গে জোট নিয়ে বৈঠক হয়েছে বলে জানা গেছে ।

আসলে বাংলার রাজনীতিতে কংগ্রেস-তৃণমূলের মধ্যে এই মুহূর্তে জোট সম্ভব নয় । তৃণমূল নেত্রী সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলার ৪২ আসনেই তারা প্রার্থী দেবেন । এই সিদ্ধান্ত নিয়ে তৃণমূল নেত্রী বুঝিয়ে দিয়েছেন কংগ্রেসের চারটি জেতা আসনেও তারা সমঝোতা করতে চাইছেন না তা স্পষ্ট হয়ে গেছে । এছাড়া সম্প্রতি মালদা উত্তরের সাংসদ মৌসম বেনজির নূরকে তৃণমূলে নেওয়াটা রাহুল গান্ধী মেনে নিতে পারছেন না । এ নিয়ে রাহুল নাকি ঘনিষ্ঠ মহলে উস্মা প্রকাশ করেছেন ।

এই ঘটনার পরেই দিল্লি নেতৃত্ব কার্যত প্রদেশ কংগ্রেসের দাবিকে মান্যতা দিয়েই তৃণমূলের সঙ্গে জোটে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন । মৌসম ইস্যুতেই তৃণমূলের প্রতি সোনিয়া-রাহুল বিরক্ত বলে জানা গেছে । এই প্রেক্ষাপটে রাজ্যে ভাল ফল করতে হলে এবার বিজেপি বিরোধী দল হিসেবে বামেরা সবচেয়ে বেশি গ্রহণযোগ্য । তারা এ রাজ্যে ৩৪ বছর ক্ষমতায় থাকার পরও কোনো সময়ই কংগ্রেসের বিধায়ক ও সাংসদদের দলে নেয়নি । ফলে এআইসিসি মনে করছে রাজ্য রাজনীতির বাধ্যবাধকতা ও বিজেপিকে রুখতে হলে বামেদের সঙ্গেই জোট করেই লড়াই করা ভাল ।

অন্যদিকে সিপিএম নেতৃত্বও ভাবছেন , জোট না হলে বামেদের ভোটের সিংহভাগই চলে যাবে বিজেপির দিকে । আর এরাজ্যে যদি বিজেপি একবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে পারে তাহলে তাকে প্রতিরোধ করা অসম্ভব হয়ে যাবে । সুতরাং এখন থেকেই কংগ্রেসের সঙ্গে জোটে গেলে লোকসভা নির্বাচনে খুব ভাল ফল না হলেও অন্তত বিজেপিকে রোখা অনেকটাই সম্ভব হবে । জোটের দ্বিতীয় স্থানে থাকার সম্ভাবনাও প্রবল হবে । সেই দিকে লক্ষ্য রেখেই লোকসভা নির্বাচনে জোট হতে চলেছে বলে জানা গেছে । মূলত ১৪ টি আসনে লড়তে পারে কংগ্রেস আর বামেরা লড়তে পারে ২৮ আসনে । এরমধ্যে ২০টি আসনে লড়বে সিপিএম ।

বাম-কংগ্রেস জোট হলে রাজ্যের সংখ্যালঘু দলিত ভোটে ভাগ বসাতে পারে এই জোট । সেক্ষেত্রে যদি জোট তৃণমূলের সংখ্যালঘু ভোটে ভাগ বসাতে পারে তাহলে হয়তো তৃণমূল নেত্রীর কপালের ভাঁজ যে আরও চওড়া হবে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই ।

 


শেয়ার করুন
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment