জেলা 

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ মত মালদার মৃত পরিবারের পাশে ফিরহাদ ; তুলে দিলেন দু লক্ষ টাকার চেক ; পরিবারপিছু একজনের চাকরি ব্যবস্থা করা হবে আশ্বাস প্রশাসনের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : শুক্রবার উত্তর প্রদেশের ভাদোহিতে বিস্ফোরণের ঘটনায় কার্পেট কারখানার ১৩ কর্মীর মৃত্যু হয় এদের মধ্যে ৯জন মালদার এনায়েতপুরের বাসিন্দা মালদার এই শ্রমিকদের মৃত্যুতে গতকালই গভীর শোকপ্রকাশ করেছিলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মৃতের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিরৈন সেই মত শনিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে মালদহেযান রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। রবিবার সকাল সাড়ে ১১ টা নাগাদ এনায়েতপুর গ্রামে তিনি পৌঁছান।

শনিবার এই এনায়েতপুর গ্রামের আট যুবক উত্তরপ্রদেশের ভাদোহি গ্রামে এক কার্পেট কারখানাতে বিস্ফোরণে মারা যান। কমলপুর গ্রামের এক যুবকও মারা যান। মোট জনের মৃত্যু হয়। এই খবর মুখ্যমন্ত্রী জানার পরে উদ্বেগ প্রকাশ করেন। সঙ্গে সঙ্গে ফিরহাদ হাকিমকে মালদহে যাওয়ার নির্দেশ দেন

এদিন এনায়েতপুরে প্রত্যেক মৃত ব্যক্তির বাড়ি বাড়ি ঘুরে সবার সঙ্গে কথা বলেন ফিরহাদ। জেলাশাসক কৌশিক ভট্টাচার্যকে বলেন যারা স্বামী হারা হয়েছেন তাদের যেন আইসিডিএস দফতরে চাকরির ব্যবস্থা করা হয়। বিধবা ভাতা চালু করার নির্দেশ দেন তিনি৷ এছাড়াও মৃত ব্যক্তির বাবা মায়েদের বার্দ্ধক্য ভাতা চালু করার কথা জানান তিনি৷ মৃতের প্রত্যেক পরিবারের হাতে রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ক্ষতিপূরণ বাবদ এক কালীন দুলক্ষ টাকার চেক টি পরিবারের হাতে তুলে দেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment