কলকাতা 

‘এতবড় সাহস একটা কথা বলতে গেলেই বলে দিচ্ছে পাকিস্তানের পক্ষে ও ভারতের পক্ষে এ । ওনারা একা দেশপ্রেমিক আর আমরা ভারত বর্ষের শত্রূ’ ভাষা শহীদদের স্মরণ মঞ্চ থেকে বিজেপিকে তোপ মমতার

শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ভাষা শহীদ স্মরনে আয়োজিত দুটি অনুষ্ঠানে যোগ দেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।সকালে কলকাতায় ভাষা-শহিদদের প্রতি শ্রদ্ধার্ঘ জানান মুখ্যমন্ত্রী। এরপর বিকেলে দেশপ্রিয় পার্কে মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে এক অনুষ্ঠানেও বক্তব্য রাখেন তিনি। ১৯৫২ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্য়ালয়ের সামনে পাকিস্তানি সেনার গুলিতে রক্তাক্ত এক অধ্য়ায় দেখেছিল তৎকালীন বাংলাদেশ। মুহূর্তে শহিদ হন ভাষা আন্দোলনের যোদ্ধা বরকত-রফিক-শফিক-জব্বাররা। তাঁদের কথা স্মরণ করে এদিন বক্তব্য পেশ করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন , নিজের ভাষার সঙ্গে সঙ্গে অন্যের ভাষাকে সম্মান করা বাংলার কৃষ্টির মধ্যে পড়ে। তিনি বলেন, ‘ভারতবর্ষ কখনও উগ্রপন্থার দেশ হতে পারে না, ভারতবর্ষ কখনওই রুদ্ধ পন্থার দেশ হতে পারে না।’

মুখ্যমন্ত্রী এদিনের মঞ্চ থেকে স্পষ্ট জানান, ‘কোনও ভেদাভেদের রাজনীতি আমার পছন্দ করি না, কোনও ভেদাভেদের সংস্কৃতি আমরা মানিনা। ‘মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, ‘কেউ অন্যায় করে থাকলে তাঁর বিরুদ্ধে অ্য়াকশন নেওয়া উচিত’, কবে একটা ঘটনা ঘটেছে বলে বাংলার বাইরের কারোর ওপর আঘাত হানা এক্কেবারই অনুচিত। কোনওভাবেই রাজ্যে , ভিন রাজ্যের মানুষের ওপর হামলাকে বরদাস্ত করা হবে বলে জানান মমতা। বিজেপির বিরুদ্ধে নাম না করেই এদিন তোপ দাগেন মুখ্যমন্ত্রী , বলেন ‘এতবড় সাহস একটা কথা বলতে গেলেই বলে দিচ্ছে পাকিস্তানের পক্ষে ও ভারতের পক্ষে এ । ওনারা একা দেশপ্রেমিক আর আমরা ভারত বর্ষের শত্রূ।’

পাশাপাশি এদিন শ্রীজাত বন্দ্য়োপাধ্যায়ের ওপর অসমে হামলার ঘটনারও নিন্দা করেছেন। পাশাপশি তাঁর দাবি, একটি বিশেষ দল ঠিক করে দিচ্ছে দেশেল কে থাকবেন , কে থাকবেন না। এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবার বার্তা দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

 


শেয়ার করুন
  • 5
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment