দেশ 

পাক-প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের হুঁশিয়ারির পর সীমান্তে পাক সেনার গোলাগুলি ; এলাকার অসামরিক নাগরিকদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে , পাল্টা প্রত্যাঘাতে ভারতীয় সেনা

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মঙ্গলবারই হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন আক্রমণ হলে অবশ্যই প্রত্যাঘাত করা হবে।   এই হুঁশিয়ারির কয়েক ঘন্টার মধ্যে ভারতীয় সেনা ছাউনি লক্ষ্য করে হেভি শেলিং পাকিস্তান সেনার। মঙ্গলবার সন্ধ্যা থেকে জম্মু-কাশ্মীরের নৌসরেতা হেভি শেলিং শুরু করে পাক সেনা। ভারতীয় সেনা ছাউনি ছাড়াও সীমান্ত সংলগ্ন গ্রামগুলিকে টার্গেট করে পাকিস্তান সেনা। এমনটাই জানা যায়।

যদিও পাকসেনাকে কড়া ভাষায় জবাব দিতে শুরু করেছে ভারতীয় সেনাও। সেনার তরফেও পালটা মর্টার শেলিং করা হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। কার্যত একেবারে খোলা হাতে পাকিস্তানকে জবাব দিচ্ছে ভারত।

দুপক্ষের গোলাগুলিতে ব্যাপক উত্তেজনা সীমান্তে। অন্যদিকে, পাকিস্তানের শেলিং থেকে সীমান্তের মানুষকে বাঁচাতে যুদ্ধকালীন তৎপরতায় তাঁদেরকে সুরক্ষিত জায়গায় সরানো হচ্ছে। পাশাপাশি পাকসেনার শেলিংয়ের পরেই সীমান্ত সংলগ্ন এলাকায় সেনাবাহিনীকে সতর্ক থাকতে বলা হয়েছে। কারণ, শেলিং করে জঙ্গিদের কভার ফায়ার দেয় পাকিস্তান সেনা। সেই কারণে হাই-অ্যালার্ট জারি হয়েছে।

ইমরানের এহেন বক্তব্যের পরেই বিনা প্ররোচনাতে সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করল পাকিস্তান সেনা।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment