দেশ 

মোদী সরকারকে জোর ধাক্কা: অসমে জাতীয় নাগরিক পঞ্জীর প্রতিবাদে ভারতরত্ন প্রত্যাখানের সিদ্ধান্ত প্রখ্যাত গায়ক ভূপেন হাজারিকার পরিবারের

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : অসমে জাতীয় নাগরিক পঞ্জিকরণ থেকে ৪০ লক্ষ বাঙালির নাম বাদ যাওয়ার কারণে এবং অসমের বর্তমান উদ্ভূত রাজনৈতিক ও সামাজিক সংকট সৃষ্টির জন্য মূলত কেন্দ্র সরকারকে দায়ী করে ভারতরত্ন সম্মান প্রত্যাখানের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন প্রখ্যাত গায়ক ভূপেন হাজারিকার পরিবার ।

উল্লেখ্য , মোদী সরকার এবছর ভূপেন হাজারিকাকে মরণোত্তর ভারতরত্ন সম্মান দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় ।  সেই সম্মান প্রত্যাখান করা হচ্ছে বলে সাংবাদিকদের জানিয়েছেন ভূপেন হাজারিকার পুত্র তেজ ।

অসমের একটি দৈনিকে ভূপেন হাজারিকার ছেলে তেজ জানিয়েছেন, “আমি অসমের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি সম্পর্কে ওয়াকিবহাল। সুধাকণ্ঠ ভূপেন হাজারিকা সব সময়ই অসমের মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন এবং লড়াই আন্দোলন করেছেন। আমরা তাই এই সম্মান গ্রহন করতে অস্বীকার করছি। পুত্র হিসেবে আমি জানাচ্ছি, ভারত সরকার তাঁকে যে মরণোত্তর সম্মান প্রদান করতে চাইছে আমরা তা গ্রহন করব না।”

সম্প্রতি, ভূপেন হাজারিকা-সহ প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায় ও সমাজকর্মী নানাজি দেশমুখকে ভারতরত্ন সম্মানে সম্মানিত করার কথা জানিয়েছে কেন্দ্রের সরকার। প্রজাতন্ত্র দিবসেই সেই সম্মান তুলে দেওয়া হবে জানানো হয়েছে। এরই মধ্যে ভারত সরকারের দেওয়া মরণোত্তর ভারতরত্ন সম্মান গ্রহন করবে না বলে জানাল ভূপেন হাজারিকার পরিবার। গত বছর অসমে কেন্দ্র সরকারের নাগরিক পঞ্জিকরণ থেকে ৪০ লক্ষ বাঙালির নাম বাদ যাওয়ার প্রতিবাদেই এই সম্মান গ্রহন করতে অস্বীকার করল তাঁর পরিবার।


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment