কলকাতা 

তৃণমূলের সঙ্গে জোটে যাবে না প্রদেশ কংগ্রেস ; সম্মানজনক শর্তে জোট হতে পারে বামেদের সঙ্গে ; জোট হবে কিনা স্পষ্ট হবে ফেব্রূয়ারি মাসের মধ্যেই

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলার জনরব ডেস্ক : রাজ্যে তৃণমূলের সঙ্গে কোনো জোট হবে না বলে জানিয়ে দিলেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র । শনিবার রাহুল গান্ধীর সঙ্গে বৈঠকের পর তিনি সাংবাদিকদের এ খবর জানান । তবে বামেদের সঙ্গে জোট হবে কিনা তা নিয়ে বলতে গিয়ে সোমেনবাবু জানিয়েছেন , সম্মানজনক শর্তে জোট হলেও হতে পারে । এদিকেলোকসভা নির্বাচনের দামামা বাজিয়ে দিল কংগ্রেস । এই ভোটের চূড়ান্ত প্রস্তুতির আগে সব রাজ্যের প্রদেশ সভাপতি ও বিরোধী দলনেতাদের নিয়ে শনিবার দিল্লিতে বৈঠক করলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। রাজ্যের বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি সহ জোট হবে কিনা তা নিয়েই সোমেন মান্নানের সঙ্গে বৈঠক করেন রাহুল গান্ধী ।

পশ্চিমবঙ্গ থেকে প্রদেশ সভাপতি সোমেন মিত্র ও বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান গিয়েছিলেন৷সূত্রের খবর, বুথ ম্যানেজমেন্ট এবং প্রচার পদ্ধতি নিয়ে বৈঠকে আলোচনা হয়েছে৷ জানা গিয়েছে, রাহুল গান্ধী চাইছেন, কংগ্রেস আক্রমণত্মক প্রচার করুক৷ দলীয় নেতাদের তিনি সেই নির্দেশ দিয়েছেন ৷ সেইসঙ্গে তিনি প্রদেশ সভাপতিদের জানিয়ে দিয়েছেন, এমাসের মধ্যেই প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করতে হবে ৷

এদিকে জানা গেছে প্রদেশ কংগ্রেসের ক্ষমতাসীন গোষ্ঠী বামেদের সঙ্গে জোট করার পক্ষে । তাঁরা মনে করছেন জোট না হলে এ রাজ্যে কংগ্রেস এবং সিপিএম ঘুরে দাঁড়াতে পারবে না । তাই জোটের প্রয়োজন আছে । তবে সেই জোট হবে সম্মানজনক শর্তে । আসলে মূল সমস্যাটা হল রায়গঞ্জ লোকসভার আসনটি । এই আসনটি প্রিয়রঞ্জনের আসন বলে পরিচিত । প্রিয়র পর তাঁর স্ত্রী দীপা দাসমুন্সী এখান সাংসদ হন । গতবার এই আসনে জয়ী হন সিপিএমের মুহাম্মদ সেলিম । যদিও ভোটের অংকটা অনেক কম ছিল । তাই সিপিএম আবার এই আসনটি দাবি করছে ; আর দীপার পক্ষে এই আসনটি ছেড়ে দেওয়া আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে । তবে এই সমস্যা মিটে যাবে বলে রাজ্য কংগ্রেসের নেতারা মনে করছেন । তবে আগামী ১৫ থেকে ২২ ফেব্রূয়ারির মধ্যে এ রাজ্যে বামেদের সঙ্গে জোট হবে কিনা তা স্পষ্ট হয়ে যাবে ।

পশ্চিমবঙ্গের কংগ্রেস নেতার কথায় বোঝা যাচ্ছে, এমাসের মধ্যে চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা তাদের পক্ষে খানিকটা অসম্ভবই৷ কারণ এখনও পর্যন্ত তাঁদের সঙ্গে সিপিএমের জোটের ভবিষ্যত ঠিক হয়নি৷ এদিনই প্রদেশ সভাপতি সোমেন মিত্র জানিয়েছেন, জোটের ভবিষ্যত ঠিক হতে আরও দিন সাতেক সময় লাগবে৷ তারপর কোন কোন আসন সিপিএম তাদের ছাড়ছে সেটা দেখে প্রার্থী ঠিক করা হবে বলে প্রদেশ নেতারা মনে করছেন৷

যেমন রায়গঞ্জ আসনটি দু-দলের মধ্যে টানাটানি হচ্ছে বলে খবর৷ কংগ্রেস এবার ওই আসন থেকে দীপা দাশমুন্সিকে প্রার্থী করতে চাইছে৷ এদিকে যেহেতু বামেরা গতবার রায়গঞ্জ কেন্দ্রে জিতেছিল তাই এবারও তারা সেখান থেকে মহঃ সেলিমকেই প্রার্থী করতে চাই৷ বিধানভবন সূত্রে খবর, এক্ষেত্রে কংগ্রেস রায়গঞ্জের বদলে মুর্শিদাবাদের কোনও একটা নিশ্চিত আসন ছাড়ার প্রস্তাব বামেদের দিতে পারে৷ ।

 


শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সম্পর্কিত নিবন্ধ

Leave a Comment